কাশিয়ানীতে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু, স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা 


সাইফুর রহমান,  গোপালগঞ্জ।। গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নিহতের কন্যা সহ স্বজনদের দাবি তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। নিহত ব্যক্তির নাম মোঃ বকুল চৌধুরী (৫৭), সে কাশিয়ানী উপজেলার সাতাশিয়া গ্রামের মৃত ইদ্রিস চৌধুরীর ছেলে। তার স্ত্রী মারা যাওয়ার পর সে আঞ্জু বেগম নামের স্বামী পরিত্যক্তা এক নারীকে পুনরায় বিবাহ করেন। বিবাহ পরবর্তী সময়ে কাশিয়ানীর শিবগাতী এলাকায় জনৈক ফজর আলী খানের একতলা ভবনে ভাড়া থাকতেন বলে জানা গেছে। আঞ্জু বেগমের আগের সংসারে ইমরান শেখ (২২) নামের একটি ছেলে রয়েছে।
ইমরান শেখ, শাহীন শেখ ও আঞ্জু বেগমের ওরশজাত সন্তান। গত ২৮ জুন সকাল ১০:৪৫ মিনিটে কাশিয়ানী থানার শিবগাতী গ্রামের ফজর আলী খানের একতলা বিল্ডিং থেকে নিহত বকুল চৌধুরীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে কাশিয়ানী থানায় মৃতের ভাই স্বপন চৌধুরী বাদী হয়ে একটি ইউডি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৩০/২৪, তারিখ ২৮/০৬/২০২৪। এ বিষয়ে নিহত মোঃ বকুল চৌধুরীর কন্যা লাবনী চৌধুরী ও তার স্বামী গত ২৭ জুন রাতে তার বাবাকে খাবার দিতে গিয়ে সৎ মা আঞ্জু বেগম ও সৎ ভাই ইমরান শেখকে তার বাবার সাথে ঝগড়া করতে দেখেছেন। এছাড়াও যে জায়গায় ফাঁস নেওয়া অবস্থায় বকুল চৌধুরীকে পাওয়া গেছে তা রহস্যজনক বলে দাবি নিহতের কন্যা ও স্বজনদের। পুলিশ প্রশাসনকে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিষয়টি খতিয়ে দেখার আহ্বান জানান তারা। এ বিষয়ে কাশিয়ানী থানার এসআই কামরুজ্জামানের ০১৭১৫…..৫৩ মুঠোফোনে যোগাযোগ হলে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে প্রথমে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করি। পরে পোস্টমর্টেমের জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করি। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট এলেই বিস্তারিত জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *