কোটা সংস্কারের দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন।


মো. খোকন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।। সরকারি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবি জানিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাধারন শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন পালন করেছে। শনিবার (৬ জুলাই) বেলা ১১টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে এ দাবি জানান তারা।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে শিক্ষার্থীরা কোটা পুনর্বহাল বাতিল, সব কোটার পরিমাণ ১০ শতাংশের নিচে কমিয়ে আনা, একজন কোটা সুবিধা ভোগকারী জীবনে যেকোনো পর্যায়ে একবার মাত্র কোটা সুবিধা নেওয়া ও কর্মসংস্থানের দাবিসহ বিভিন্ন দাবি উল্লেখ করেন।
আন্দোলনে অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, বিগত কয়েকটি বিসিএসসহ প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর চাকরিতে কোটায় নিয়োগের ফলে মেধাবীদের সাথে বৈষম্যমুলক আচরন করছে। জনবলের চাহিদা অনুযায়ী মেরিট লিস্টে থাকার পরও চাকরি পাচ্ছে না। অথচ কোটাধারীরা সিরিয়ালে হাজারের পিছনে থাকার পরও চাকরিতে নিয়োগ পাচ্ছে। এর ফলে দেখা যায় আমাদের মেধাবী শিক্ষার্থীরা মেধানুযায়ী চাকরি না পেয়ে বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে।
বক্তারা আরো বলেন, কোটা থাকা কোনো দেশের জন্য শুভ লক্ষণ না। কিন্তু আমাদের দেশটা যারা রক্ত দিয়ে স্বাধীন করেছে সাংবিধানিক ভাবেই তাদেরকে সেটার প্রতিদান দেওয়া হয়েছে এবং সেটার ফল তাদের বর্তমান প্রজন্মও এখন অবধি ভোগ করছে। কিন্তু সেই প্রতিদানের পরিমাণই বা কতটুকু হওয়া দরকার ছিল। তারা সংখ্যায় দেশের মোট জনসংখ্যার ২ শতাংশেরও কম এবং তাদের জন্য কোটা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৬ শতাংশ। যেটা একেবারেই অযৌক্তিক। আমরা কোটা বাতিল চাই না, কোটা পদ্ধতির সংস্কার চাই। আমাদের দাবি এই কোটা শতাংশের পরিমাণ সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ করা হোক। এবং সেই সঙ্গে কোটার সুবিধা ভোগ কারীরা জীবনে যেকোনো ক্ষেত্রে একবার কোটার সুবিধা নিতে হবে।
ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক শিক্ষার্থী সানিউর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি এড. আব্দুন নুর, জেলা জজকোটের আইনজীবী এড. নাছির মিয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া খেলাঘরের সাধারন সম্পাদক নিহারন্জন সরকার, সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী ফাহিম মোন্তাসির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী সাইদুল হাসান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কলেজের শিক্ষার্থী মোঃ জাহিদ হোসেন, কাজী শফিকুল ইসলাম মহাবিদ্যালয় শিক্ষার্থী আইরিন মৃধাসহ কর্মসূচিতে বিভিন্ন কলেজ ও মহলে জনসাধারন অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *