ঝালকাঠিতে স্কুলের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে আহত ৫ শিক্ষার্থী


মো. নাঈম হাসান ঈমন, ঝালকাঠি।। ঝালকাঠি রাজাপুরের একটি বিদ্যালয় ভবনের ছাদ থেকে পলেস্তারা খসে পড়ে পঞ্চম শ্রেণির পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।
রোববার (৭ জুলাই) দুপুরে উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর পূর্ব সাতুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ দূর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান জানান।
সিদ্দিকুর বলেন, পঞ্চম শ্রেণির ইংরেজি ক্লাস চলছিল। এমন সময় ছাদ ধসে পড়ে বিকট শব্দ হয়। বালু-সুরকি মাথায় ও চোখে পড়ে পঞ্চম শ্রেণির জুনায়েদ ও তামিমসহ অন্তত পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। তবে তারা প্রাথমিক চিকিৎসায় সুস্থ হয়েছে। কিন্তু ঘটনার পর থেকে ক্লাসের শিশু শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।
প্রধান শিক্ষক আরও বলেন, ২০০৪ সালে অফিস রুমসহ দুই কক্ষের এই ভবনটি নির্মাণ করা হয়। একটিতে পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস এবং আরেকটিতে বিদ্যালয়ের অফিস রুমের কাজ চালিয়ে আসছি। অন্য একটি টিনসেড রুমে চলে অন্যান্য ক্লাস। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরেই ঝুঁকির মধ্যে এ ভবনটি আমাদের ব্যবহার করতে হচ্ছে। ছাদের ফাটলসহ চরম ঝুঁকির কথা উল্লেখ করে এক বছর আগেই আমি কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে বিষয়টি জানিয়েছি। কর্তৃপক্ষ একবার পরিদর্শনও করেছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনো প্রতিকার পাইননি, আক্ষেপ করে বলেন তিনি।
এদিকে ঘটনার পর পূর্ব সাতুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শনে যান রাজাপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আক্তার হোসেন।
পরে তিনি বলেন, “উপজেলা প্রকৌশলীও এর আগে স্কুলটি ভিজিট করে গেছেন। কিন্তু ভবনটি এত ঝুঁকিপূর্ণ ছিলো তা বাইরে থেকে দেখে বোঝা যায়নি। আমি ভবনটির দুটি কক্ষই তালা মেরে সব ধরনের ক্লাস ও দাপ্তরিকে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছি। ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করতে প্রধান শিক্ষককে লিখিত আবেদন করার জন্য বলেছি।
এবিষয়ে জেলা প্রথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অশোক কুমার সমদ্দারের দাবি করেন বলেন, স্কুলটির এমন জরাজীর্ণ অবস্থা সম্পর্কে এর আগে তাকে কেউ জানায়নি। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার মাধ্যমে খোঁজ নিয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়ে স্কুলটির জন্য জরুরি বরাদ্দ চাওয়া হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *